রাজশাহীতে ভারতীয় ভিসা অফিস থেকে দালাল চক্রের এক সদস্য গ্রেফতার

0
80

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীস্থ ভারতীয় ভিসা অফিসের বিরুদ্ধে অনিয়ম দূনীতির অভিযোগ নতুন নয়। একাধিকবার সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছে ভারতীয় ভিসা অফিসের নানান অনিয়ম দূনীতির চিত্র। এবারে এক ভিসা প্রত্যাশীর নিকট থেকে ভিসা অফিসে প্রবেশ করিয়ে দেয়ার বিনিময়ে ৫০০ টাকা ঘুষ লেনদেনের সময় জনতার হাতে ধরা খেয়েছে এক দালাল সদস্য।

৩ অক্টোবর (সোমবার) দুপুর ১টার সময় নগরীর বর্ণালী মোড়স্থ ভারতীয় ভিসা অফিসের প্রবেশ গেটের ভেতর এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে দালাল চক্রের এ সদস্যকে আটক করে নগরীর শিরোইল ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

আটক হওয়া সেই ব্যাক্তি রাজশাহী মহানগরীর হড়গ্রাম (লিলি হল মোড়) এলাকার মাইনুল ইসলামের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৩৫)। জানা যায়, শহিদুল ইসলাম ভারতীয় ভিসা অফিসের ভবনটির মালিকের গাড়ি চালক।

ঘটনাসূত্রে জানা যায়, ০৩ অক্টোবর (সোমবার) সকালে ভারতীয় ভিসা প্রত্যাশীদের থেকে অবৈধভাবে প্রকাশ্যে টাকা গ্রহনের সময় জনরোষানলে পড়ে শহিদুল। এরপর ভিসা প্রত্যাশীরা হট্টোগোল শুরু করলে ভিসা সেন্টারের গেট বন্ধ করে দেয় প্রতিষ্ঠান কতৃপক্ষ।
গনমাধ্যমকর্মীরা এবিষয়ে কথা বলার জন্য অফিসের ভেতরে প্রবেশ করতে চাইলে কাউকেই ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়নি। সেখানে আরও মিডিয়াকর্মীরা উপস্থিত হলে তারা গেটে তালা লাগিয়ে ভিতরে চলে যায়। মিডিয়ারকর্মীরা সেখানকার দ্বায়িত্বরত ইনচার্জের সাথে কথা বলতে চাইলেও তাদের কোন সহযোগিতা পাওয়া যায়নি।

পরে রাজশাহী মহানগরীতে অবস্থিত ভারতীয় ভিসা সেন্টারের ইনচার্জ বিপ্লব সাহা’র মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

তবে, হাতেনাতে টাকা নেওয়া ও জনগণের হট্টোগোলের কারনে অভিযুক্ত দালাল সদস্যকে আটক করে ভারতীয় ভিসা অফিসের দ্বায়িত্বরত পুলিশ।
পরে বোয়ালিয়া থানাধিন শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই শহিদুল্লাহ কাইসার গ্রেফতার দালাল চক্রের সদস্য শহিদুলকে শিরোইল ফাঁড়িতে নিয়ে যায়। এবিষয়ে শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শহিদুল্লাহ কাইসারের সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমরা একজনকে ধরেছি। আপাতত তাকে জিজ্ঞেসাবাদের জন্য ফাঁড়িতে আটক রাখা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি শহিদুল ভিসা সেন্টারের বিল্ডিং মালিকের ড্রাইভার। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বাঁকি তথ্য জানা যাবে। মামলা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি থানায় পাঠাবো বাঁকিটা ওসি স্যার দেখবেন।
Source: RajshahirSomoy